চান্দ্রায় অর্ধশতাধিক চাপকল চুরির ঘটনায় দুই চোরকে আটক

চান্দ্রায় অর্ধশতাধিক চাপকল চুরির ঘটনায় দুই চোরকে আটক

প্রতিবেদক : মোঃ হোসেন গাজী

চাঁদপুর সদর উপজেলার ১২ নং চান্দ্রা ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড মধ্য মদনা গ্রামে চোরাই চাপকল বিক্রি করতে গেলে হাতেনাতে দুই চোরকে আটক করেছেন চান্দ্রা ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী।

আটকৃতদের ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসার পর তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা চুরির ঘটনা সংগঠিত করেছে বলে স্বীকার করেন।  ৭ এপ্রিল বুধবার দুপুরে আটক দুই চোরকে চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন ইউপি চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারী।  আটক দুই চোর মধ্য মদনা গ্রামের দেলোয়ার গাজীর ছেলে মনির গাজী ও মোস্তফা হাওলাদার এর ছেলে জামাল হাওলাদার।

জানাযায়, গত ৬ এপ্রিল মঙ্গলবার গভীর রাতে এলাকার চিহ্নিত এই দুই চোর মদনা হক্কানিয়া মাদ্রাসার চাপকল চুরি করে স্থানীয় ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী আবিদ হাওলাদারের কাছে বিক্রি করতে যায়।  এ সময় ৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার আক্তার হোসেন গ্রাম পুলিশ হারুন সহ স্থানীয় লোকজন ওই দুই চোরকে চোরাই চাপকল সহ হাতেনাতে আটক করে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসে।

বুধবার ইউপি চেয়ারম্যান খান জাহান আলী পাটোয়ারী চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রশিদকে ঘটনা সম্পর্কে অবহিত করলে তিনি তাৎক্ষণিক পুলিশ পাঠায়।
এসময় মডেল থানার এসআই রফিকসহ চেয়ারম্যান ও মেম্বারের উপস্থিতিতে আটক ২ চোর চুরির ঘটনা স্বীকার করেন।

স্থানীয়রা আরো জানায়, এই চোরদের হাত থেকে সাধারণ মানুষ তো দূরের কথা সাংবাদিকও রেহাই পায়নি।  কয়েকদিন পূর্বে রাস্তার পাশে থাকা এক সাংবাদিকের গাড়ির ব্যাটারিসহ অন্যান্য যন্ত্রাংশ চুরি করে নিয়ে ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী সেলিম গাজী ও আবিদ হাওলাদারের কাছে বিক্রি করে।

মদনা গ্রামের রাস্তার পাশে বেশ কয়েকটি ভাঙ্গারির ব্যবসায়ী রয়েছে তারা এলাকার চোরচক্রদের শেল্টার দিয়ে চুরির ঘটনা সংঘটিত করছে বলে অভিযোগ উঠেছে ।  চুরির মালামাল তারা কম মূল্যে কিনে বেশি দামে বিক্রি করে লক্ষ লক্ষ টাকার হাতিয়ে নিয়েছে।  এসকল চোরচক্র ও তাদের শেন্টার দাতাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু পাটোয়ারী সাংবাদিকদের জানান, এলাকার কিছু ছিঁচকে চোর রয়েছে, তারা প্রতিরাতে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসহ মানুষের বসতবাড়ির চাপকল চুরি করেছে।  তারা চুরি করে সেই টাকা দিয়ে মাদক সেবনের ব্যয় করে।  এলাকার প্রায় ৩০ জন ব্যক্তি চাপকল চুরির ঘটনায় ইউনিয়ন পরিষদে অভিযোগ করেছেন।  আটক দুই চোরকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।  দেশের প্রচলিত আইনে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Recommended For You

About the Author: Matlaber Alo

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *