ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলা আ.লীগের মানববন্ধন

চাঁদপুর জেলা আ.লীগের মানববন্ধন

প্রতিবেদক : অভিজিত রায়
কুষ্টিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ।  ৬ ডিসেম্বর রোববার সকালে শহরের বাসস্টেশন এলাকায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতির বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ।

চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু নঈম পাটোয়ারী দুলালের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আব্দুর রব ভূইয়া, সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক আহসান উল্লাহ আখন্দ, যুগ্ম-সম্পাদক অ্যাড. জহিরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহির হোসেন পাটওয়ারী, জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক নুরুল ইসলাম মিয়াজী, দপ্তর সম্পাদক শাহ আলম মিয়া, জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান কালু ভূইয়া, যুগ্ম-আহ্বায়ক আবু পাটওয়ারী. পৌর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন ভূইয়া, জেলা শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহবুবুর রহমান, চাঁদপুর জেলা বঙ্গবন্ধু সমাজ কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার আলম মাসুম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আকতার হোসেন পাটওয়ারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক পারভেজ করিম বাবু প্রমূখ।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রশিদ সর্দার, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. রুহুল আমিন, স্বাস্থ্য ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হারুন অর রশিদ সাগর, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু নাসের বাচ্চু পাটওয়ারী, সদস্য দেলোয়ার সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শ্রম বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম ভূইয়া, পৌর আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির হোসেন মন্টু দেওয়ান, সদর উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি নাজমুল হোসেন পাটওয়ারী, জেলা কৃষক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক এইচ এম হারুন, জেলা শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ওহিদুর রহমান, সহ-সভাপতি ইসমাইল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, ম,হিলা আওয়ামীসহ অঙ্গসহযোগী দলের নেতা-কর্মীরা উপিস্থত ছিলেন।

মানববন্ধনে জেলা আ.লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্য দেশ স্বাধীনতা পেয়েছে।  একাত্তরে স্বাধীনতা বিরোধী একটি চক্র এখন আবার মাথা চারা দিয়ে উঠেছে। কিন্তু তাদের কোন ছাড় দেওয়া হবে না। আমরা তীব্র ভাষায় হুশিয়ার করে দিয়ে বলতে চাই, যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর করেছে তাদেরকে অতি দ্রুত আইনের আওতায় আনতে হবে।  আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা নরম মনের অধিকারী। তাই অনেক ধৈর্য ধারন করেছে। কিন্তু আর নয়। জাতির পিতার প্রশ্নে কোন ছাড় দেওয়া হবে না।

Recommended For You

About the Author: Matlaber Alo

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *