মতলব খেয়াঘাটের টোল আদায়কারীদের অর্থদন্ড

খেয়া-নৌকা-পারাপারে-ভোগান্তী

আব্দুল মান্নান খান, মতলব প্রতিনিধি :
মতলব খেয়াঘাটের টোল আদায়কারীদের ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড দিয়েছেন মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক।  বুধবার ২৫ নভেম্বর নদী পারাপারে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের দায়ে এই দন্ড দেওয়া হয়।

মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিস সূত্রে জানা যায়, নদী পারাপারে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করা হচ্ছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরেজমিনে তদন্ত করতে যান। গিয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের সত্যতা খুঁজে পেলে তিনি টোল আদায়কারীদের ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন এবং ভবিষতের জন্য সর্তক করে দেন।

মতলব খেয়াঘাট দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। ঘাটের ইজারা নিয়ে চাঁদপুর জেলা পরিষদ ও মতলব পৌরসভার মধ্যে মামলা চলার কারণে প্রায় চার বছর ধরে খেয়াঘাটের ইজারা বন্ধ রয়েছে। কিন্তু স্থানীয় লোকজন সিন্ডিকেটের মাধ্যমে জেলা পরিষদের কতিপয় দুর্নীতিবাজ কর্মচারীর যোগসাযোসে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ঘাটের টোল উত্তলনের কাজ বাগিয়ে নেয়। আর সেই থেকেই বিনা টেন্ডারে টোল আদায় কাজে ব্যক্তিরা ইচ্ছে মতো জনগণের কাছ থেকে টাকা আদায় করছে।

স্থানীয়রা জানান, আগে এই ঘাট দিয়ে প্রতিবার যাওয়ার সময় জনপ্রতি ২ টাকা দিতে হতো।  ধীরে ধীরে ২ টাকা থেকে ৩টাকা এবং সর্বশেষ ৫ টাকা করে আদায় করা হয়। এছাড়া কোনো ব্যক্তি মতলব বাজার থেকে কোনো পণ্য ক্রয় করে নিয়ে যাওয়া সময় আদায় করা অতিরিক্ত টাকা। এই নিয়ে অনেক সময় নদী পারাপারের যাত্রী ও টোল আদায়কারীদের মধ্যে তর্ক-বির্তক হয়।  ঘাটে জনপ্রতি ৫ টাকা আদায়ের ক্ষেত্রে সকল মানুষের ক্ষোভ ছিলো।   আর এই বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা হয়।

Recommended For You

About the Author: Matlaber Alo

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *